সমতলে বাণিজ্যিকভাবে মাল্টা

ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ রসালো ফল মাল্টা। ফলটি প্রধানত পাহাড়ি অঞ্চলের হলেও এখন সমতল ভূমিতেও এর চাষ হচ্ছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার কৃষকরা মৌসুমী ফল লিচু, কাঁঠাল ও পেয়ারার পর মাল্টা চাষের দিকে ঝুঁকেছেন। তারা এ চাষে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছেন।

কৃষি সম্প্রসারণ অফিসের সহযোগিতায় ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে বারি-১ মাল্টা পৌর শহরসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় চার বছর ধরে আবাদ করছেন কৃষকরা। কম শ্রমে বেশি লাভ হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে এ চাষ।

জানা যায়, মাল্টা গাছে সাধারণত ফেব্রুয়ারি মাসে ফল ধরে। পরিপক্ব হয়ে কমলা রং ধরে সেপ্টেম্বর মাসের দিকে। ফুল আসা থেকে শুরু করে ফল পাকতে সময় লাগে প্রায় ৬ মাস। প্রতি গাছ থেকে ১০-১৫ কেজি মাল্টা পাওয়া যায়।

 

কৃষক ইকলাছ মিয়া বলেন, ৪ বছর আগে তিনি ২ বিঘা জমিতে মাল্টা বারি-১ জাতের ১২০টি গাছ লাগান। দুই বছরের মাথায় সবগুলো গাছেই আশানুরূপ ফলন হয়েছে। এখন তার বাগানে প্রতিটি গাছে ৯০-১২০টি মাল্টা ধরেছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, মাল্টা বারি-১ উচ্চ ফলনশীল সুস্বাদু ফল। প্রতি বিঘা জমিতে ১০০টি গাছ লাগানো যায়। প্রতিটি গাছ থেকে বছরে গড়ে প্রায় ৩০০ মাল্টা পাওয়া যায়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শাহানা বেগম বলেন, মাল্টা চাষে এলাকার পুষ্টির চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি চাষিরা আর্থিকভাবেও অনেক লাভবান হতে পারেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে